Primary School Teacher Job Circular 2019- www.dpe.gov.bd

By | November 10, 2019

Primary School Teacher`s Offer Some New Vacancy at www.dpe.gov.bd. Recruitment Notice of Primary Assistant Teacher also found at alljobscircularbd.com. Educational Qualification for the Primary School Teacher`s job circular written below this Post. Most of the government jobs, Bank jobs and Non govt job application completed by Post Office method. You can also know how to apply Primary School Teacher govt job circular in  2019.

Primary School Teacher Job Circular – Download Application Form

Many people find government jobs such as Primary School Teacher`s govt jobs. Now Primary School Teacher`s published new jobs circular. Before apply Primary Assistant Teacher govt jobs through Online keep below this short Information.

Primary School Teacher Job Circular

Application Published Date : 02 November 2019
Organization: Primary School Teacher
Job Type : Government Jobs
Age Limit For Jobs: 18 to 30 Years
Post Details: See The Circular
Application Fee : 100 Taka

Educational Qualification: See The Circular
Source : Online
Official website :  www.dpe.gov.bd
Salary : 14,500 Taka
Application Start Date: In November 2019
Job Nature: Full-time
Application Closing Date: 14 November 2019
For more information see below this original circular

Primary School Teacher Job Circular

Primary School Teacher Job Circular

আসছে দ্বিতীয় ধাপের নিয়োগ সুপারিশ

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৪০ হাজার শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। যেসব প্রার্থী এই নিয়োগ সুপারিশের প্রেক্ষিতে যোগদান করবে না, সেসব শূন্য পদে নিয়োগের দ্বিতীয় চক্রের ২য় ধাপের সুপারিশ তালিকা প্রকাশ করা হবে। এ লক্ষ্যে ইতিমধ্যে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রার্থীদের যোগদান নিশ্চিত করে অনলাইনে এনটিআরসিএকে জানাতে বলা হয়েছে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের। আগামী মাসে এ বছরের নিয়োগ সুপারিশে দ্বিতীয় ধাপের তালিকা প্রকাশ করা হতে পারে বলে বৃহস্পতিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দৈনিক শিক্ষাকে জানিয়েছে এনটিআরসিএ সূত্র।

সূত্র জানায়, গত ডিসেম্বরে প্রকাশিত গণবিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী প্রার্থীদের করা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আবেদনগুলোর মধ্য থেকেই দ্বিতীয় দফায় নিয়োগ সুপারিশ করা হবে। কোনো প্রার্থী যদি যোগদান না করে থাকেন তাহলে সেই শূন্যপদে মেধাতালিকায় এগিয়ে থাকা ওই প্রতিষ্ঠানে পরবর্তী আবেদনকারী প্রার্থী সুপারিশ প্রাপ্ত হবেন। দ্বিতীয় দফায় নিয়োগ সুপারিশের তালিকা আগামী মাসে প্রকাশ করার পরিকল্পনায় কাজ করছে এনটিআরসিএ। তবে, কোন প্রকার আইনি জাটিলতা সৃষ্টি হলে তালিকা প্রকাশে একটু দেরি হতে পারে বলে জানিয়েছে সূত্র।

উল্লেখ্য, ২০১৬ খ্রিস্টাব্দে প্রকাশিত গণবিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী নিয়োগের সুপারিশ প্রক্রিয়াকে প্রথম চক্র হিসেবে আখ্যায়িত করছে এনটিআরসিএ। আর ২০১৮ খ্রিস্টাব্দের নিয়োগ সুপারশি প্রক্রিয়াকে বলা হচ্ছে দ্বিতীয় চক্র। ২য় চাক্রের ১ম ধাপের নিয়োগ সুপারিশ অনুযায়ী কোনো প্রার্থী যদি যোগদান না করে সেই শূন্য পদে ২য় ধাপে নিয়োগ সুপারিশ করা হবে।

জানা গেছে, ছয় মাসের ডিপ্লোমায় আইসিটি বিষয়ে নিবন্ধনধারীরা সুপারিশ প্রাপ্ত হওয়ায় তাদের নিয়োগে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। গত বছর জারি হওয়া এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামোতে আইসিটি শিক্ষক পদে নিয়োগের যোগ্যতার পরিবর্তন জটিলতা সৃষ্টির কারণ বলে দাবি করছেন এনটিআরসিএ কর্মকর্তারা।

অপরদিকে সুপারিশ প্রাপ্তদের দাবি নীতিমালা জারি আগে তারা নিবন্ধিত, তাই তাদের নিয়োগ দিতে হবে। এসব সুপারিশ প্রাপ্তদের নিয়োগ থেকে বিরত থাকতে বলেছিল এনটিআরসিএ। সে প্রেক্ষিতে বেসরকারি স্কুলে আইসিটি বিষয়ের শিক্ষক ও কলেজে আইসিটি প্রভাষক পদে কয়েকশো প্রার্থী যোগদান করতে পারবেন না। এসব পদে দ্বিতীয় চক্রে নিয়োগ সুপারিশ করা হবে।

ইতিমধ্যে কর্মরত থেকেও আবেদন করা অনেক প্রার্থী পছন্দসই প্রতিষ্ঠানে সুপারিশ না পাওয়ায় যোগদান করবেন না। ননএমপিও পদে সুপারিশ পেয়ে অনেকে যোগদান থেকে বিরত থাকছেন। সেসব শূন্য পদেও নিয়োগ সুপারিশ করা হবে।

এরই মধ্যে যোগদানে বাধাগ্রস্থ প্রার্থীদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের চিঠি পাঠিয়ে সুপারিশ প্রাপ্তদের যোগদান করিয়ে নিতে বলা হয়েছে বলে দাবি এনটিআরসিএর। তবে, এর আগে অভিযোগগুলো যাচাই বাছাই করা হয়েছে এবং কেবলমাত্র যুক্তিসঙ্গত অভিযোগগুলোর জন্যই ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানা গেছে।

এনটিআরসিএ সূত্র জানায়, যোগদানে বাধার বিষয়ে নীতিমালায় শাস্তির কথা উল্লেখ রয়েছে। সুপারিশপ্রাপ্তদের যোগদান বাধাগ্রস্থ হলে এনটিআরসিএকে লিখিতভাবে জানাতে বলা হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কোনো প্রতিষ্ঠান প্রার্থীদের যোগদান করতে না দিলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর এবং বোর্ডগুলোতে চিঠি দিয়ে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ পাঠানো হবে। ইতিমধ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের একটি বিজ্ঞপ্তি সংযুক্ত করে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের চিঠি পাঠিয়ে সুপারিশ প্রাপ্তদের নিয়োগপত্র দিতে বলা হয়েছে।

তবে, মাদরাসায় কৃষি বিষয়ক সহকারী শিক্ষক পদে সুপারিশ প্রাপ্তদের বিএড সংক্রান্ত জটিলতা নিরসন করার কথা জানা গেলও তাদের বিষয়ে সুস্পষ্ট কোন তথ্য এখনো জানায়নি এনটিআরসিএ সূত্র।

Post Name: Accountant

Total Vacancy: 65099

Organization Name: Directorate of Primary Education (DPE)

Job Type: Government Job

Primary School Accountant Exam Syllabus:

1. Bangla

2. English

3. Math

4. General Knowledge (GK)

5. General Science And ICT

Primary School Accountant Exam Marks Distribution:

Total Marks: 100

Exam Type: MCQ + Viva

MCQ Exam marks: 80  and Viva Marks: 20

Marks: 80

No. of Question: 80 ( Every question is equal 1 mark)

Negative Mark: .25 for each wrong answer.

MCQ Exam Marks Distribution:

1. Bangla-20

2. English-20

3. Math-20

4. General Science And ICT-5 

4. General Knowledge (GK)-15

Primary Upcoming Job Circular Accountant Post 2019

Primary School Teacher Job Circular

Primary Job Circular 2019 Related Notice

সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একজন করে হিসাব রক্ষকের পদ সৃষ্টি করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখন পদ সৃজন, জনপ্রশাসন ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনসহ প্রয়োজনীয় প্রশাসনিক কর্মকাণ্ড সম্পন্ন করা হবে বলে মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে। মন্ত্রণালয়ে অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) মো: গিয়াস উদ্দিন আহমেদ হিসাব রক্ষকের পদ সৃষ্টির নীতিগত সিদ্ধান্তের বিষয়টি জানিয়ে গতকাল নয়া দিগন্তকে বলেন, ‘প্রধান শিক্ষক’ প্রতিষ্ঠান প্রধান এবং বিদ্যালয়ে পাঠদান ও তদারকিতে আরো সক্রিয় করতে বিদ্যালয়ে একজন হিসাব রক্ষক প্রয়োজন। এ ব্যাপারে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করে কার্যক্রম চলবে।
গতকাল প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে সচিব মো: আকরাম-আল-হোসেনের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত উচ্চপর্যায়ের এক বৈঠকে এ ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। বৈঠকে মন্ত্রণালয়ে সব অতিরিক্ত সচিব, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর মহাপরিচালকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই) সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে বিদ্যালয়ের সব ধরনের হিসাব সংরক্ষণ ও পরিচালনাসহ বিদ্যালয়ের দাফতরিক সব কর্মকাণ্ড এককভাবে প্রধান শিক্ষককে করতে হয়। এ ছাড়াও সরকারের নানা ধরনের নির্দেশনামূলক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত থাকায় প্রধান শিক্ষকেরা বিদ্যালয়ের পাঠদান পরিচালনা-তত্ত্বাবধান-সমন্বয় সঠিকভাবে করতে পারছেন না। তাই প্রধান শিক্ষককে পাঠদানে আরো মনোনিবেশ করাতে এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।
মন্ত্রণালয় ও ডিপিই সূত্র জানান, অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত প্রাথমিক শিক্ষার স্তর নির্ধারণ করা হয়েছে শিক্ষানীতিতে। সরকারের নতুন মেয়াদে এটি শতভাগ কার্যকর করা না গেলেও এর প্রক্রিয়া শুরু হতে পারে। তাই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নির্ভর হিসাব সংরক্ষণ-পরিচালনা সমীচীন হবে না। এ ছাড়া এখন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অনেক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চলছে। এসবের সঠিক হিসাব সংরক্ষণ প্রশ্নের মুখে পড়ছে। অনেক বিদ্যালয় থেকে হিসাব সংরক্ষণে নানা ধরনের জটিলতার সৃষ্টি হচ্ছে। তাই একজন যোগ্য-মানসম্পন্ন ‘হিসাব রক্ষক’ জরুরি হয়ে পড়েছে। এসব বিবেচনায় দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ‘হিসাব রক্ষকের পদ সৃষ্টি’র কথা বিবেচনা করা হয়েছে।
মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, সহস্রাব্দের উন্নয়ন অভীষ্টের (এসডিজি) শর্তানুসারে মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করতে মানসম্পন্ন প্রাথমিক শিক্ষার ওপর গুরুত্বারোপ করা হচ্ছে। সরকার এ লক্ষ্য অর্জনে বিগত দিন ও বছরগুলোর চেয়ে এখন অতিমাত্রায় স্পর্শকাতর। প্রাথমিক শিক্ষার মান নিশ্চিত করতে এরই মধ্যে বেশ কিছু পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। তার মধ্যে ‘ওয়ান ডে ওয়ান ওয়ার্ড’ এবং প্রাথমিকে গণিত অলিম্পিয়ার্ড চালু অন্যতম। এসব কারণে প্রধান শিক্ষককে পাঠদান নিশ্চিত করতে আরো বেশি মনোযোগী করতেই হিসাব রক্ষকের পদ সৃষ্টির নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, সারা দেশে বর্তমানে ৬৫ হাজার ৯৯টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সংখ্যা হচ্ছে ৩৭ হাজার ৬৭২টি, বিদ্যালয়বিহীন গ্রামে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ১ হাজার ২০৭টি, নতুন জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ২৬ হজার ১৫৯টি এবং পরীক্ষণ বিদ্যালয় ৬১টি। এসব স্কুলে ১ জন করে ‘হিসাব রক্ষক’ নিয়োগ দেয়া হবে। এ হিসাবে সারা দেশে ৬৫ হাজার ৯৯ জন ‘হিসাব রক্ষক’ হিসেবে নিয়োগ পাবেন।
কবে নাগাদ ‘হিসাব রক্ষক’ পদে নিয়োগ দেয়া হবে জানতে চাইলে মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, পদ সৃজন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনসহ অন্যান্য প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে বেশ সময় লাগবে। চলতি অর্থবছরে ‘হিসাব রক্ষক’ পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়ার চেষ্টা করা হবে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একজন মানসম্পন্ন ‘হিসাব রক্ষক’ পদে নিয়োগ দেয়া হবে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আয়-ব্যয়ের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা-জবাবদিহিতা আরো নিশ্চিত হবে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের ওপর চাপ কমবে।

সুত্রঃ নয়াদিগন্ত

Primary Assistant Teacher Job Circular 2019. Primary Assistant Teacher is now a attractive job circular in Bangladesh. Joining the smart and big service team of Primary Assistant Teacher. Primary Assistant Teacher is now very dependable Govt. service team in Bangladesh. Primary Assistant Teacher Job Circular Related Notice and all information is found my website below.

Directorate of Primary Education has been Published Govt Primary School Assistant Teacher Recruitment Circular. Interested and Eligible Candidates can apply online within time frame. Online Application will be started from 23 September 2018 and it will be continue up to 22 October 2018.

At this moment Primary job is the best job in Bangladesh. And the Primary Assistant Teacher is a very attractive job for every people in Bangladesh. Let`s Check Below this original Circular about Primary School Assistant Teacher jobs for jessore Division.

Primary School Teacher Jobs Download

At this moment Primary job is the best job in Bangladesh. And the Primary Assistant Teacher is a very attractive job for every people in Bangladesh. Primary Assistant Teacher Job Circular 2018

How to apply Primary School Teacher job circular

Are you ready for apply this Primary School Teacher job circular using your Online www.mopa.gov.bd ? Let`s follow this instruction and complete your Primary Teacher Post Office application registration.

Primary Teacher Exam Date, Result and Admit Card Notice

Many Candidate search for Primary School Teacher`s job exam date, admit card download notice etc. on Google. We are able to provide you all information about this circular by our website. When, When online registration will be complete candidate can be able to download there admit card through Primary School Teacher official website.

To get Daily government and Non Govt job circular stay with our website and share our post to your time line. You can also able to contact with us on our Facebook Fan page. For Next Updates about Primary School Teacher`s Job circular Vacancy Notice, Exam Result or Admit card Download stay with us. My Website or comment below for further information. You can also get more notice about School Teacher to there official website address at www.dpe.gov.bd. Hope you do all this thing for get your job circular from Bangladesh. Thanks for being with us.

check original image

More jobs :