Bangladesh Railway job circular – www.railway.gov.bd

By | December 4, 2021

Bangladesh Railway Offer Some New Vacancy at www.railway.gov.bd. Recruitment Notice of Bangladesh Railway`s Government Vacancy also found at Our Website www.alljobscircularbd.com . Educational Qualification for the Railway Bangladesh job circular written below this Post. Most of the government jobs, Bank jobs and Non govt job application completed by Online method. You can also know how to apply Railway Bangladesh govt job circular in And 28 December 2021 at 5.00 PM.

Bangladesh Railway Job Circular – Download Application Form

Many people find government jobs such as Bangladesh Railway govt jobs. Now Railway Bangladesh published new jobs circular. Before apply Railway Bangladesh govt jobs through Online keep below this short Information.

Department Name : Padma Bridge Rail Link Project
Application Published Date : 14 November 2021
Job Type : Government Jobs
Total Post : 762
Application Fee : 56/112 Taka
Official website :  www.railway.gov.bd

Educational Qualification: HSC Passed
Age Preferred: 30 years
Online Application Start Date: In 23 November 2021 at 10:00 AM 
Post Name : Circular click here
Salary : 9,700– 23,490 Taka
Online Application Last Date :28 December 2021 at 5.00 PM
For View full Circular click here

Bangladesh Railway Job Circular

Bangladesh Railway Job Circular

পয়েন্টসম্যান এর কাজ কি

পয়েন্টসম্যান এর কাজ:

ট্রেন চলাচল নির্বিঘ্ন করতে জরুরি কাজে নিয়োজিত থাকে পয়েন্টসম্যান পদের কর্মচারীরা। স্টেশন ছাড়ার আগে ট্রেনচালকের কাছে ট্র্যাক ও অন্যান্য বিষয়ে স্টেশনমাস্টারের নির্দেশনা পৌঁছে দেন পয়েন্টসম্যান। কোথাও কোথাও রেল ট্র্যাক পরিবর্তনের কাজটিও করেন পয়েন্টসম্যান। পয়েন্টসম্যানকে রেলওয়ের পয়েন্টসংক্রান্ত যাবতীয় কাজ করতে হয়। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া অথবা কুয়াশাচ্ছন্ন আবহাওয়ায় যখন একটি ট্রেনের লােকোমাস্টার সিগন্যাল দেখতে ব্যর্থ হন অথবা সিগন্যালিং সিস্টেম কোনাে কারণে ফেল করে, তখন সেই ট্রেনটিকে নিরাপদে নিয়ে আসার মতাে গুরুত্বপূর্ণ কাজ পয়েন্টসম্যানকে করতে হয়। একটি ট্রেনের ইঙিন কাটা থেকে শুরু করে ট্রেনটির মধ্যে বিভিন্ন কোচ যােজন-বিয়ােজন করে সাজানােও তার কাজ। মালবােঝাই গাড়ি দ্রুত ও দক্ষতার সঙ্গে সঠিক জায়গায় প্লেসমেন্ট দেওয়াও তার দায়িত্বের মধ্যে। পড়ে।

points-man বা pointsman পদের কর্মচারীরা পি-ম্যান ( p-man ) নামেও পরিচিত। এই পদে লোকবল সংকট থাকলেও তা কাটিয়ে উঠতে পারছে না রেলওয়ে। এতে করে বন্ধ হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে অন্তত ২০টি গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনে রেলওয়ের যাত্রী ও পরিবহন সেবা।

২০২০’ এর পূর্বে এই পদে সরাসরি নিয়োগের সুযোগ ছিল না। তখনকার নিয়োগ বিধি অনুযায়ী রেলওয়ের ট্রাফিক বিভাগে গেটকিপার, পোর্টার, সিলম্যান ও ওয়েটিংরুম বেয়ারাসহ অন্যান্য চতুর্থ শ্রেণীর পদে ন্যূনতম ৩ বছর কর্মরতদের মধ্য থেকে পয়েন্টসম্যান নিয়োগ দেয়া হতো।

পয়েন্টসম্যানের দায়িত্ব ও পদোন্নতি

পয়েন্টসম্যানকে রেলওয়ের পয়েন্টসংক্রান্ত যাবতীয় কাজ করতে হয়। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া অথবা কুয়াশাচ্ছন্ন আবহাওয়ায় যখন একটি ট্রেনের লোকোমাস্টার সিগন্যাল দেখতে ব্যর্থ হন অথবা সিগন্যালিং সিস্টেম কোনো কারণে ফেল করে, তখন সেই ট্রেনটিকে নিরাপদে নিয়ে আসার মতো গুরুত্বপূর্ণ কাজ পয়েন্টসম্যানকে করতে হয়। একটি ট্রেনের ইঞ্জিন কাটা থেকে শুরু করে ট্রেনটির মধ্যে বিভিন্ন কোচ যোজন-বিয়োজন করে সাজানোও তাঁর কাজ। মালবোঝাই গাড়ি দ্রুত ও দক্ষতার সঙ্গে সঠিক জায়গায় প্লেসমেন্ট দেওয়াও তাঁর দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। কাজের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার সুবাদে একজন পয়েন্টসম্যানের ‘চিফ ইয়ার্ড মাস্টার’ পর্যন্ত পদোন্নতি হওয়ার সুযোগ রয়েছে।

আবেদন করতে পারবেন যারা

পাবনা ও লালমনিরহাট জেলা বাদে সব জেলার প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। তবে এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী এবং রেলওয়ের পোষ্য কোটায় সব জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

প্রার্থীর বয়স

যে সকল প্রার্থীর বয়স ১৫ নভেম্বর ২০২১ তারিখে ১৮ বছর পূর্ণ হবে এবং ২৫ মার্চ ২০২০ তারিখে যাদের বয়স ৩০ বছর শেষ হয়েছে তারাও আবেদনের যোগ্য বলে বিবেচিত হবে।

পয়েন্টসম্যান পদে অনলাইনে আবেদনের লিংক

আগ্রহী প্রার্থীদের অনলাইনে বিস্তারিত জেনে http://br.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

পয়েন্টসম্যান পদে আবেদন ফি

আবেদন করার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ৫৬ টাকা আবেদন ফি জমা দিতে হবে।

পয়েন্টসম্যান পদে আবেদনের সময়সীমা

অনলাইনে আবেদন ও পরীক্ষার ফি জমাদান শুরু ২৩ নভেম্বর সকাল ১০টা থেকে ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ পর্যন্ত।

নিয়োগ প্রক্রিয়া ও শর্ত

⇒ নিয়োগ বিধি অনুযায়ী পয়েন্টম্যান পদের জন্য লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।
⇒ আবেদনে কোন প্রকার অসত্য তথ্য বা কোন কিছু গোপন করলে প্রার্থীর আবেদন বাতিল বলে গণ্য হবে।
⇒ লিখিত ও ব্যবহারিক পরীক্ষার জন্য কোন প্রকার টিএ/ডিএ প্রদান করা হবে না।
⇒ মৌখিক পরীক্ষার সময় সকল সনদ পত্রের মূল কপিসহ একসেট সত্যায়িত কপি জমা দিতে হবে।

অনলাইনের সময় যা লাগবে :
⇒ আবেদন সময় সদ্য তোলা রঙ্গিন ছবি ২ কপি ৩০০× ৩০০ পিক্সেল ও
⇒ স্বাক্ষর ৩০০× ৮০ পিক্সেল সাইজের প্রদান করতে হবে।
⇒ আবেদন শেষে ৭২ ঘন্টার মধ্যে টেলিটক সিম হতে ১৬২২২ তে ৫৬ টাকা পাঠিয়ে আবেদন কনফার্ম করতে হবে।
⇒ ৭২ ঘন্টার মধ্যে টাকা কনফার্ম না করলে আবেদন স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাতিল হয়ে যাবে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের সহকারী স্টেশন মাস্টার পদের সংশোধিত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি (সংশোধনী-২) প্রকাশ প্রসঙ্গে

সহকারী স্টেশন মাষ্টার পদে চাকরি ২০২১

বিষয়ভিত্তিক পরামর্শ
♦ বাংলা : এখানে দুটি অংশ: সাহিত্য ও ব্যাকরণ। সাহিত্য অংশের জন্য শুরুতে বিগত বিসিএস, নন-ক্যাডার, সহকারী স্টেশন মাস্টারসহ বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ব্যাখ্যাসহ পড়লে প্রস্তুতিতে বেশ কাজে দেবে। বিগত বছরগুলোর বিভিন্ন সরকারি চাকরির পরীক্ষার প্রশ্ন থেকে অনেক প্রশ্নই কমন পড়ে। এরপর ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির বাংলা বইয়ের লেখক পরিচিত খেয়াল করে পড়বেন। পাঠ্য বই থেকে পড়তে না পারলে চাকরির প্রস্তুতির গাইড বই থেকে পড়ে বিভিন্ন লেখক সম্পর্কে ধারণা নিতে পারেন। বিস্তারিত পড়বেন প্রাচীন যুগের চর্যাপদ, মধ্যযুগ, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম, জসীমউদ্দীন, শামসুর রাহমান, মাইকেল মধুসূদন দত্ত, বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় সম্পর্কে। প্রয়োজনে এই কয়জন লেখক-সাহিত্যিকের রচনাগুলো ছন্দ বা কৌশল বানিয়ে মনে রাখবেন। এখান থেকে প্রতিবছরই একাধিক প্রশ্ন আসে। তারপর মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক কয়েকটি গল্প, উপন্যাস ও নাটক এবং বিভিন্ন সাহিত্যিকের ছদ্মনাম ও উপাধি পড়লে আশা করা যায় বাংলা সাহিত্য নিয়ে আর টেনশন করতে হবে না।
বাংলায় ব্যাকরণ অংশ থেকে বেশি প্রশ্ন আসে। তাই সাহিত্যের চেয়ে ব্যাকরণ অংশে বেশি জোর দিতে হবে। যেসব টপিকস থেকে প্রতিবছর প্রশ্ন আসে, সেগুলো হলো—এককথায় প্রকাশ/বাক্য সংকোচন, বাগধারা, কারক-বিভক্তি, সন্ধি, বানান শুদ্ধি, সমার্থক শব্দ, বিপরীত শব্দ, শব্দের প্রকারভেদ (কোনটা কোন দেশি শব্দ), সাধু ও চলিত রূপ, সমাস, পদ প্রকরণ, ক্রিয়ার কাল, পরিভাষা, উপসর্গ প্রভৃতি। এ ছাড়া আরো ভালো প্রস্তুতির জন্য ব্যাকরণের অন্যান্য টপিকস থেকেও অনুশীলন করতে পারেন। ব্যাকরণের প্রস্তুতি নিতে হবে মুনীর চৌধুরী রচিত নবম-দশম শ্রেণির বাংলা ব্যাকরণ বই থেকে। আর অনুশীলনের জন্য বাজারের ভালো মানের কোনো একটা প্রকাশনীর বই পড়া যেতে পারে, বিশেষ করে প্রতিটি অধ্যায়ের শেষে দেওয়া বিগত সালের প্রশ্নগুলো। ভালো মানের একটা বই-ই যথেষ্ট। একাধিক বই কেনার প্রয়োজন নেই।
♦ ইংরেজি :
ইংরেজিও দুটি অংশ। লিটারেচার ও গ্রামার। লিটারেচার থেকে খুবই কম প্রশ্ন আসে। অতীতের প্রশ্ন বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে লিটারেচার থেকে দুই-তিনটি প্রশ্ন এসেছে। কোনো কোনো পরীক্ষায় একটি প্রশ্নও আসেনি। তবু সেরা প্রস্তুতির জন্য এগুলোও পড়তে হবে, বিশেষ করে বিগত সালে আসা বিসিএস, নন-ক্যাডারসহ বিভিন্ন চাকরির পরীক্ষায় আসা প্রশ্নগুলো। Shakespeare, John Milton, Wordsworthসহ যাঁরা বিখ্যাত লেখক তাঁদের সম্পর্কে ন্যূনতম ধারণা নিয়ে যাবেন।
গুরুত্ব সহকারে প্রস্তুতি নিতে হবে গ্রামার অংশে। বিগত সালের প্রশ্ন বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে—যেসব টপিকস থেকে অধিক প্রশ্ন আসে, সেগুলো হলো : 1. Parts of Speech, 2. Identification of Parts of Speech, 3. Interchange Parts of speech, 4. Phrase & Clause, 5. Gerund & Participle, 6. Number & Gender, 7. Preposition, 8. Right form or Verb, 9. Voice & Narration, 10. Subject-Verb Agreement, 12. Conditional Sentence, 13. Synonym, Antonym, 14. Spelling, 15. One word substitutions, 16. Changing sentence প্রভৃতি।
ইংরেজি অংশের প্রস্তুতির জন্য বাজারের ভালো মানের কোনো একটা প্রকাশনীর বই পড়লেই যথেষ্ট। একাধিক বই নিলে বেশি পড়তে গিয়ে সব গুলিয়ে ফেলেন অনেকে। তবে বই নির্বাচনের ক্ষেত্রে এমন বই নির্বাচন করতে হবে, যেখানে বিগত সালের প্রশ্ন বেশি দেওয়া আছে এবং তথ্যগুলো নির্ভুল।
♦ গণিত :
বিগত সালের প্রশ্ন বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, গণিতেও কিছু নির্দিষ্ট টপিকস থেকে প্রতিবছরই প্রশ্ন আসে। বিগত সালের প্রশ্নগুলো বুঝে বুঝে অনুশীলন করতে হবে। শুধু বিগত সালের প্রশ্ন সমাধান করলেও প্রস্তুতি অনেকটা হয়ে যাবে। তবে যাঁদের গণিতের বেসিক দুর্বল, তাঁদের একটু বাড়তি যত্ন নিতে হবে।
গণিতকে তিনটি অংশে ভাগ করা যায়। পাটিগণিত, বীজগণিত ও জ্যামিতি। পাটিগণিত থেকেই ৯-১০টির মতো প্রশ্ন থাকে। এই অংশ সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। গণিতের প্রস্তুতির জন্য পঞ্চম-অষ্টম শ্রেণির গণিত বই থেকে পাটিগণিত বুঝে বুঝে করবেন। এখনো পরীক্ষার যতটুকু সময় আছে, তাতে নিয়মিত বুঝে বুঝে অনুশীলন করে গণিতে ভালো করা সম্ভব।
পাটিগণিতের যেসব টপিকস থেকে বেশি প্রশ্ন আসে—মুনাফা, লাভ-ক্ষতি, শতকরা, অনুপাত, মৌলিক ও বাস্তব সংখ্যা, ঐকিক নিয়ম, বয়স, ভগ্নাংশ, গড়, সময় ও দূরত্ব, লসাগু ও গসাগু প্রভৃতি।
বীজগণিত থেকে সাধারণত তিন-চারটি অঙ্ক আসে। প্রস্তুতির জন্য বেশি গুরুত্ব দিতে হবে এসব টপিকসে— বীজগাণিতিক রাশি, উৎপাদকে বিশ্লেষণ, মান নির্ণয়, এক চলক ও দ্বিচলকবিশিষ্ট সমীকরণ, সূচক, লগারিদম ও ধারা প্রভৃতি। গণিতের শেষ অংশ হলো জ্যামিতি। জ্যামিতি থেকে দু-একটা প্রশ্ন আসে। গুরুত্বপূর্ণ টপিকস—রেখা, কোণ ও ত্রিভুজ, পিথাগোরাসের উপপাদ্য, বৃত্ত, পরিমিতিতে বর্গক্ষেত্র, আয়তক্ষেত্র ও সমকোণী ত্রিভুজসংক্রান্ত সমস্যা প্রভৃতি। গণিতে নিয়মিত অনুশীলনই সফলতা আনতে পারে।
♦ সাধারণ জ্ঞান
সাধারণ জ্ঞানে দুই ধরনের প্রশ্ন হয়—সাম্প্রতিক বিষয় আর মৌলিক বিষয়। সাধারণ জ্ঞানের পরিধি বিশাল, তাই প্রস্তুতিও নিতে হবে ব্যাপকভাবে। বিগত বছরের প্রশ্নগুলো বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, বেশ কয়েকটি বিষয় থেকে সাধারণত বেশি প্রশ্ন আসে। যেমন—বাংলার ইতিহাস, ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু, সংবিধান, বাংলাদেশ পরিচিতি, নির্বাহী বিভাগ, বিচার বিভাগ, বাংলাদেশের সংস্কৃতি, বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা, বিশেষ করে রেলওয়ে, বাংলাদেশের সম্পদ, বাংলাদেশের অর্থনীতি, শিক্ষা, খেলাধুলা প্রভৃতি বিষয় গুরুত্বপূর্ণ। এ ছাড়া আন্তর্জাতিক বিষয়াবলির জন্য আন্তর্জাতিক সংস্থা ও সংগঠন, বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রব্যবস্থা, রাজধানী ও মুদ্রা, ভৌগোলিক বৈচিত্র্য (পর্বত, সাগর, প্রণালী, খাল), গুরুত্বপূর্ণ সম্মেলন, চুক্তি, খেলাধুলা প্রভৃতি।
সাধারণ জ্ঞানে ভালো প্রস্তুতির জন্য দৈনিক পত্রিকার অর্থনৈতিক পাতা, আন্তর্জাতিক ও উপসম্পাদকীয় নিয়মিত পড়তে হবে। গুরুত্বপূর্ণ তথ্য-উপাত্ত খাতায় নোট করে রাখা যেতে পারে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবর নিয়মিত শোনার অভ্যাস থাকলে খুব ভালো। এ ছাড়া বাজারে প্রচলিত সাধারণ জ্ঞানের ভালো মানের একটি গাইড বই পড়া যেতে পারে।
-দৈনিক কালের কণ্ঠ / চাকরি আছে (১৩-১১-২১)
©এম এম মুজাহিদ উদ্দীন
লেখক : ভাইভা বোর্ডের মুখোমুখি,
ব্যাংকার’স ভাইভা বোর্ড।

বাংলাদেশ রেলওয়ের ৪০% পোষ্য কোটার নিয়োগ বিধি

বাংলাদেশ রেলওয়ে #সহকারী_স্টেশন_মাস্টার নিয়োগে পরীক্ষার প্রশ্ন ২০১৮

 

❑❑ বাংলাদেশ রেলওয়ের নিয়োগ পরীক্ষায় কোটা গণনাকরণ পদ্ধতিঃ
☞☞ সর্বশেষ হালনাগাদ: ২৩.১১.২০১৭ ইং
☞☞ পদের নামঃ বুকিং সহকারী (গ্রেড-৩), ২০১২ সাল; ১১৭ টি পদ।
☞☞ জেলার জনসংখ্যার অনুপাতেঃ
I. ঢাকা জেলার প্রাপ্য মোট পদ সংখ্যা ৮.১৪ টি; আর কোটার জন্য পদ বরাদ্ধ ৭.৩৩ টি। বাকি ০.৮১ টি পদ আল্লাহর রহমতে সাধারণের।
II. চট্রগ্রাম জেলার প্রাপ্য মোট পদ সংখ্যা ৬.১৮ টি; আর কোটার জন্য পদ বরাদ্ধ ৫.৫৭ টি। বাকি ০.৬১ টি পদ আল্লাহর রহমতে সাধারণের।
III. খুলনা জেলার প্রাপ্য মোট পদ সংখ্যা ২.২৩ টি; আর কোটার জন্য পদ বরাদ্ধ ২.০০ টি। বাকি ০.২৩ টি পদ আল্লাহর রহমতে সাধারণের।
☞☞ বিভাগের জনসংখ্যার অনুপাতেঃ
I. ঢাকা বিভাগের প্রাপ্য মোট পদ সংখ্যা ৩৬.৮৩ টি; আর কোটার জন্য পদ বরাদ্ধ ৩৩.১৭ টি। বাকি ৩.৬৬ টি পদ আল্লাহর রহমতে সাধারণের।
II. চট্রগ্রাম বিভাগের প্রাপ্য মোট পদ সংখ্যা ২২.৭৯ টি; আর কোটার জন্য পদ বরাদ্ধ ২০.৫১ টি। বাকি ২.৪৮ টি পদ আল্লাহর রহমতে সাধারণের।
III. খুলনা বিভাগের প্রাপ্য মোট পদ সংখ্যা ১৩.৮০ টি; আর কোটার জন্য পদ বরাদ্ধ ১২.৩৩ টি। বাকি ১.৪৭ টি পদ আল্লাহর রহমতে সাধারণের।
এভাবে অন্যান্য জেলার ও বিভাগের বিস্তারিত বিবরণ জানতে আগ্রহীরা প্রদত্ত লিঙ্ক বা ইমেজ ফাইল দেখতে পারেন । আগামি দিনগুলোতে যারা বাংলাদেশ রেলওয়েতে বিভিন্ন পদে পরীক্ষা দিবেন তাদের জন্য শুভ কামনা
❑❑ সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণঃ কোটা জাতির জন্য ক্ষতিকর।
❑❑ বিস্তারিতঃ http://railway.portal.gov.bd/

See More Railway job circular

How to apply Railway Bangladesh job circular

Are you ready for apply this Railway Bangladesh Government job circular using your Online www.railway.gov.bd ? Let`s follow this instruction and complete your Railway Bangladesh Post Office application registration.

Railway Bangladesh Exam Date, Result and Admit Card Notice

Many Candidate search for Railway`s job exam date, admit card download notice etc. on Google. We are able to provide for your all information about this circular by our website. When, When online registration will be complete candidate can be able to download there admit card through Railway Bangladesh Board official website.

To get Daily government, Bank Jobs and Non Govt jobs Vacancy Continue with our website and share our post to your time line. You can also able to concretion with us on our Facebook Fan page. For Next Updates about Bangladeshi Railway Job circular Vacancy Notice, Exam Result or Admit card Download stay with us. My Website or comment below for further information. You can also get more notice about Railway Bangladesh to there official website address at www.railway.gov.bd. Hope you do all this body for get your job circular from Bangladesh. Thanks for being with us.